Wednesday, August 26, 2020

মহালছড়ি সাম্প্রদায়িক হামলার ১৭তম বার্ষিকীতে আলোচনা সভা

মহালছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটি নিউজ
বুধবার, ২৬ আগস্ট ২০২০

মহালছড়িতে পাহাড়িদের উপর সাম্প্রদায়িক হামলার ১৭তম বার্ষিকীতে আজ ২৬ আগস্ট ২০২০, বুধবার ইউপিডিএফের মহালছড়ি ইউনিটের উদ্যোগে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আলোচনা সভায় ইউপিডিএফের মহালছড়ি ইউনিটের সংগঠক দিগন্ত চাকমার সভাপতিত্বে ও পিসিপি’র খাগড়াছড়ি জেলার সাবেক সভাপতি সুমন্ত চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন মহালছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য তান্টু মনি তালুকদার, সুশীল জীবন চাকমা, প্রকৃতি চাকমা, স্বপন চাকমা, এজং চাকমা ও দৈব রঞ্জন চাকমা প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ২০০৩ সালের ২৬ আগস্ট পাহাড়িদের উপর সেটলার বাঙালিরা যে হামলা চালিয়েছিল তা ছিল পরিকল্পিত একটি হামলা। সেনাবাহিনীর প্রত্যক্ষ সহযোগীতায় এই হামলা চালানো হয়। এই হামলায় পাহাড়িদের চার শতাধিক ঘরবাড়ি পুড়িয়ে ছাই করে দেওয়া হয়। ধ্বংস করে দেওয়া হয় ৪টি বৌদ্ধ বিহার। নৃশংসভাবে খুন করা হয় ৮০ বছরের বৃদ্ধ বিনোদ বিহারী খীসা ও আট মাস বয়সী এক শিশুকে।

সেদিন হামলারকারী সেটলাররা ১০ জন জুম্ম নারীকে ধর্ষণ করে ও ব্যাপক লুটপাট চালায়। তাদের হামলা থেকে বৌদ্ধ ভিক্ষুরাও রেহাই পাননি। এই হামলায় পাহাড়িরা ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এই ক্ষতি তারা আজও কাটিয়ে উঠতে পারেনি।

কিন্তু বড়ই পরিতাপের বিষয় হচ্ছে আজ ১৭ বছর অতিক্রান্ত হলেও এই হামলার বিচার আজ্ও হয়নি।

বক্তারা আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড়িদের উপর সংঘটিত প্রত্যেকটি ঘটনায় রাষ্ট্রীয় প্রশাসন, সেনাবাহিনী জড়িত থাকে। মহালছড়িতে সেদিন সেনাবাহিনী ও প্রশাসন যদি সেটলারদের নিবৃত্ত করতো তাহলে সেটলাররা পাহাড়িদের গ্রামের পর গ্রাম জ্বালিয়ে পুড়িয়ে ছাড়খার করে দিতে পারতো না। কিন্তু উল্টো সেনাবাহিনীর সদস্যরাই সেটলারদের সাথে হামলায় অংশ নিয়েছিল।

সভা থেকে বক্তারা ১৭ বছর আগে সংঘটিত এই হামলার বিচার দাবি করেন। একই সাথে পার্বত্য চট্টগ্রামে এ যাবত পাহাড়িদের উপর সংঘটিত সকল সাম্প্রদায়িকক হামলা ও হত্যাকাণ্ডেরও বিচারের দাবি জানান।

---

No comments: