Sunday, July 18, 2021

সিন্দুকছড়িতে হুমকি ও চাপের মুখে নিজের ঘর ভাঙতে বাধ্য হলেন সোহেল ত্রিপুরা

ভেঙে ফেলা বাড়ি

গুইমারা প্রতিনিধি ।। সিন্দুকছড়ি ইউনিয়নের ললিন্দ্র পাড়ার বাসিন্দা সোহেল ত্রিপুরা, পিতা- মৃত বগেন্দ্র ত্রিপুরা নামে এক গ্রামবাসী রাষ্ট্রীয় বিশেষ মহলের হুমকি ও চাপের মুখে নিজের বসত ঘর ভাঙতে বাধ্য হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল শনিবার (১৭ জুলাই ২০২১) বিকালে তিনি ভয় ও ক্ষোভ-দুঃখে নিজের ঘরটি ভেঙে ফেলেন বলে স্থানীয়রা জানান।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার সকালে সোহেল ত্রিপুরাকে সিন্দুকছড়ি জোনে ডেকে পাঠানো হয়। তিনি সেদিন সকাল ১০টার সময় জোনে গিয়ে হাজির হন। এ সময় তাকে তার ঘরটি ভেঙে ফেলতে বলা হয় এবং ঘরটি না ভাঙলে জায়গাটি দখল করে নেয়ার হুমকি দেওয়া হয়। আর এতে ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে গতকাল বিকালে তিনি কাউকে কিছু না বলে নিজের ঘরটি ভেঙে ফেলেন।

সোহেল ত্রিপুরার ঘরটি গত মাসে দখল হওয়া সনে রঞ্জন ত্রিপুরার জায়গাটি [যা কমিউনিটি ক্লিনিক নাম দিয়ে দখল করা হয়) থেকে আনুমানিক ২ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত। সেখানে তার নিজস্ব সৃজন করা সেগুন বাগান রয়েছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সিন্দুকছড়ি-মহালছড়ি সড়কের আশে-পাশের এলাকায় বসবাসরত পাহাড়িরা বর্তমানে চাপা আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন। কখন উচ্ছেদ হতে হয় সে আশঙ্কা নিয়েই তারা জীবন-যাপন করতে বাধ্য হচ্ছেন।

No comments: