Saturday, October 09, 2021

মহালছড়ির মাইসছড়িতে ভূমি বেদখলের প্রতিবাদে চট্টগ্রামে পিসিপি’র বিক্ষোভ সমাবেশ

চট্টগ্রাম ।। ‘পাহাড়িদের প্রথাগত ভূমি আইনের স্বীকৃতি দাও’ এই শ্লোগানে খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলার মাইসছড়ি ইউনিয়নে সেটলার কর্তৃক পাহাড়িদের ভূমি বেদখলের প্রতিবাদে চট্টগ্রাম নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি)।

আজ শনিবার (৯ অক্টোবর ২০২১) বিকাল সাড়ে ৩টায় পিসিপি’র চট্টগ্রাম মহানগর ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখার যৌথ উদ্যোগে নগরীর ডিসি হিলের সামানে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি চেরাগী মোড় প্রদক্ষিণ করে প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশে মিলিত হয়।

সমাবেশে পিসিপি’র চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সদস্য সুদেব চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন পিসিপি’র চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক অমিত চাকমা ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আহ্বায়ক মিটন চাকমা।

সমাবেশে অমিত চাকমা বলেন, সরকার ও পার্বত্য চট্টগ্রামে কথিত নিরাপত্তার নামে নিয়োজিত সেনাবাহিনী রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে সমতল থেকে পাহাড়ে পুনর্বাসিত বাঙালিদের দিয়ে পাহাড়িদের ভূমি বেদখলের পাঁয়তারা চালাচ্ছে। যেটি শাসকগোষ্ঠীর পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে পাহাড়িদের বিতাড়িত করার ষড়যন্ত্রের অংশ। সম্প্রতি খাগড়াছড়ির মহালছড়ির মাইসছড়ি ইউনিয়নে পাহাড়িদের মালিকানাধীন ভূমি বেদখল ও পানছড়ির মরাটিলায় দেব রঞ্জন ত্রিপুরার কলাবাগান কেটে দেওয়ার ঘটনা তাই প্রমাণ করে। কারণ সেনাবাহিনী ও প্রশাসন বরাবরই এসব ভূমি বেদখলকারী সেটলারদের পক্ষ নিয়ে থাকে।

মিটন চাকমা অভিযোগ করে বলেন, পাহাড়ে প্রতিনিয়ত পাহাড়িদের ভূমি বেদখল, পাহাড়ি নারী ধর্ষণ ও সাধারণ পাহাড়িদের ‘সন্ত্রাসী’ তকমা লাগিয়ে দিয়ে নিপীড়ন-হয়রানির মাধ্যমে ভীতি সঞ্চার করা হচ্ছে। অপরদিকে ভূমি বেদখলসহ অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ গেলে সন্ত্রাসী লেলিয়ে দিয়ে হয় খুন নয়তো গ্রেফতার করে মিথ্যা মামলা দিয়ে জেলে ঢুকিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

তিনি গত ৫ অক্টোবর রামগড়ে চাইথোয়াই মারমাাকে নৃশংসভাবে হত্যার ঘটনাকে পরিকল্পিত উল্লেখ করে বলেন, মূলত রামগড় সদরের মাষ্টার পাড়া এলাকা থেকে পাহাড়িদের ভিটেমাটি ও জায়গা-জমি বেদখলের উদ্দেশ্যেই আতঙ্ক সৃষ্টি করতে একটি মহল পরিকল্পিতভাবে আরফিন শরীফ পাটোয়ারিকে দিয়ে চাইথোয়াই মারমাকে ইট দিয়ে মাথা থেতলে ও শরীরে পেট্রোল ঢেলে দিয়ে পুড়িয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে। তিনি চাইথোয়াই মারমার খুনির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

সমাবেশ থেকে পিসিপি’র নেতৃবৃন্দ মহালছড়ির মাইসছড়িতে সেটলার কর্তৃক পাহাড়িদের মালিকানাধীন বেদখলের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অতি দ্রুত প্রশাসন কর্তৃক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণপূর্বক বেদখলকৃত ভূমি পাহাড়ি মালিকদের ফিরিয়ে দেয়ার দাবি করেন। একই সাথে তারা পার্বত্য চট্টগ্রামে ভূমি বেদখল ও অন্যায় দমন-পীড়ন বন্ধ করার দাবি জানান।

উল্লেখ্য, গত ৫ ও ৬ অক্টোবার স্থানীয় এক যুবলীগ নেতার নেতৃত্বে সেটলার বাঙালিরা মাইসছড়ি ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড এলাকায় পাহাড়িদের মালিকানাধীন ৫ একর জায়গা বেদখল করে সেখানে ২৫টি ঘর নির্মাণ করেছে ও প্রতিনিয়ত ভূমি মালিকদের হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

No comments: