Tuesday, November 23, 2021

গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ পাশ নিশ্চিতসহ তিন দাবিতে পিসিপিসহ ৮ ছাত্র সংগঠনের বিক্ষোভ

দাবি না মানলে আগামী ২৯ নভেম্বর শাহবাগে সড়ক অবরোধ ঘোষণা

ঢাকা ।। গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ পাশ নিশ্চিত করা, জ্বালানী তেল ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম কমানো এবং বধির্ত বাস ভাড়া প্রত্যাহারের দাবিতে আজ মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর ২০২১) দুপুরে রাজধানী ঢাকায় নীলক্ষেত মোড়ে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি) সহ ৮ ছাত্র সংগঠন।

দেড় ঘন্টা ব্যাপী চলা বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে ছাত্র সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শিক্ষার্থীদের দাবি না মানলে আগামী ২৯ নভেম্বর শাহবাগে সড়ক অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিন থেকে দুপুর ১২টায় বিক্ষোভ মিছিল সহকারে টিএসসি ঘুরে নীলক্ষেত মোড়ে এসে তারা সমাবেশে করে।

বিক্ষোভ সমাবেশে, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি মাসুদ রানার সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি গোলাম মোস্তফা, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি ইকবাল কবীর, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক মিখা পেরেগু, গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিলের সহ-সভাপতি সায়েদুল হক নিশান, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি মিতু সরকার, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের দপ্তর সম্পাদক শুভাশীষ চাকমা ও বিপ্লবী ছাত্র-যুব আন্দোলনের সভাপতি তৌফিকা প্রিয়া।

সমাবেশে ছাত্র নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকার পরিবহন খাতের সামগ্রিক নৈরাজ্য জারি রেখে ভাড়া বৃদ্ধির বোঝা জনগণের উপর চাপিয়ে দিচ্ছে। পরিবহন খাতের মাফিয়া এবং চাঁদাবাজের দৌরাত্ম্য ঠেকানোর কোন পদক্ষেপ সরকারের নাই। আন্তর্জাতিক বাজারের অজুহাতে দাম বৃদ্ধি করলেও আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমলে বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহার করা হয় না। এগুলো সরকারের গণবিরোধী চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ।

ছাত্র নেতারা আরও বলেন, অবিলম্বে শিক্ষার্থীদের হাফ পাশের প্রজ্ঞাপন জারি করতে হবে। প্রজ্ঞাপন জারি করলে ছাত্রদের সাথে পরিবহন শ্রমিকদের অকারণ বাকবিতণ্ডা তর্ক বিতর্ক, মারামারি বন্ধ হবে। শহরের গণপরিবহনে কোনো সিটিং সার্ভিস চলবে না। ওয়েবিল চেকিং এর নামে বাড়তি ভাড়া নেয়া বন্ধ করতে হবে, কিলোমিটার প্রতি ভাড়া নিতে হবে। ন্যুনতম ভাড়ার সিদ্ধান্ত বাতিল করতে হবে।

ছাত্রনেতারা হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের দাবি না মানলে বৃহত্তর আন্দোলন কর্মসূচি নেয়া হবে।

সায়েন্সল্যাব মোড়ে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ছাত্রলীগের হামলা প্রসঙ্গে নেতৃবৃন্দ জানান, শিক্ষার্থীদের প্রত্যেকটি আন্দোলনে এবং যেকোনো গণআন্দোলনে ছাত্রলীগ চাপাতি হেলমেট হাতুড়ি লাঠিসোটা নিয়ে হামলা করে। ভোট ডাকাতির সরকারের যেকোনো গণবিরোধী সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের বিরুদ্ধে যেকোনো গণতান্ত্রিক আন্দোলন দমনে ছাত্রলীগ এবং পুলিশের ভূমিকা একই। আন্দোলনে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ছাত্রসমাজের বৃহত্তর প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান ছাত্রনেতারা।

সমাবেশ থেকে আগামী সোমবার (২৯ নভেম্বর) শাহবাগ সহ বিভিন্ন স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে সড়ক অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি সায়েন্সল্যাব মোড়, কাটাবন, শাহবাগ মোড় ঘুরে সন্ত্রাস বিরোধী রাজু ভাস্কর্যের সামনে এসে শেষ হয়।

No comments: