Saturday, August 15, 2020

কাপ্তাই রাইখালীতে সেনাবাহিনী কর্তৃক ৮ জনকে আটক, ৬ জনকে মারধর

রাঙামাটি, সিএইচটি নিউজ
শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০

রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলার রাইখালী ইউনিয়নে সেনাবাহিনী কর্তৃক ৮ গ্রামবাসীকে আটক, ৬ জনকে মারধর এবং আতঙ্ক সৃষ্টি করতে দুই রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষণের অভিয়োগ পাওয়া গেছে।


স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে যে, গতকাল ১৪ আগস্ট ২০২০, শুক্রবার বিকাল ৫ টার সময় কাপ্তাই সেনা জোনের ২৩ই বেঙ্গল রেজিমেন্টের জোনের অধীনে রাইখালী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মিটিঙ্গ্যাছড়ি পাড়া নামক স্থানে নতুন স্থাপিত সেনা ক্যাম্পে দায়িত্বরত সেনা সদস্যরা প্রথমে স্কুলছাত্রসহ দুই জনকে নিজ বাড়ি থেকে আটক করে সেনা ক্যাম্পে নিয়ে যায়।

আটককৃতদের মধ্যে একজন হলেন- রাইখালী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের পানছড়ি পাড়ার মংপাইচিং মারমার ছেলে মংথোয়াইচিং মারমা (৪৫)। তিনি একজন জুমচাষী কৃষক ও দিন মজুর। আরেকজন হলেন একই ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের তিনছড়ি জুমিয়া পুনর্বাসন পাড়ার আমুই মারমার ছেলে আথুই মারমা (১৪)। তিনি সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র।

আটক উক্ত দুই জনকে ছাড়িয়ে আনার জন্য বিকেল ৬টার সময় গ্রামের নারী-পুরুষ মিলে সেনা ক্যাম্পে যায়। এসময় সেনা সদস্যরা ক্যাম্পের দিকে অগ্রসর হতে গ্রামবাসীদের বাধা দেয়।

গ্রামের লোকজন সেনাবাহিনীর বাধা উপেক্ষা করে আটককৃতদের মুক্তির দাবি করে অগ্রসর হতে থাকলে গ্রামবাসীদের ছত্রভঙ্গ করতে ঐ সময় সেনাক্যাম্প থেকে দুই রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোঁড়া হয়। তবুও গ্রামবাসীরা অগ্রসর হলে সেনাসদস্যরা লাঠিসোটা তাদের উপর চড়াও হয়। নারী-পুরুষ নির্বিচারে গ্রামবাসীদেরকে এলোপাতাড়ি বেদম মারধর করে। এতে অশীতিপর একজন বৃদ্ধাসহ অন্তত ৬ জন নারী আহত হয় বলে জানা যায়।

আহত নারীদের মধ্যে ৫ জন হলেন- (১) চিংক্রা মারমা, ৮০ বছর, পানছড়ি পাড়া; (২) ওয়াংসাং মারমা, স্বামী-আমুই মারমা, পানছড়ি পাড়া; (৩) মেঞো মারমা, ৩০ বছর, স্বামী- উহ্লাচিং মারমা, তিনছড়ি জুমিয়া পুনর্বাসন পাড়া; (৪) উক্রাচিং মারমা, ৩২ বছর, স্বামী কমল চন্দ্র তঞ্চঙ্গ্যা, তিনছড়ি জুমিয়া পুনর্বাসন পাড়া; (৫) মাসুইচিং মারমা, ৫৫ বছর, স্বামী- রুসাইউ মারমা, তিনছড়ি জুমিয়া পুনর্বাসন পাড়া।

এ সময় সেখান থেকে সেনারা আরও ছয়জনকে আটক করে ক্যাম্পে নিয়ে যায়।

আটককৃতরা হলেন- (১) কালাধন চাকমা, ৩৫ বছর, পিতা- বাইট্যা চাকমা; (২) বাইট্যা চাকমা, ৬৫ বছর, পিতা মৃত কেহাধন চাকমা; (৩) অংথোয়াইউ কার্বারী, ৬০ বছর, পিতা মৃত সুইহ্লা মারমা; (৪) সাচিন্দ্র তঞ্চঙ্গ্যা, ৫৫ বছর, পিতা মৃত বলমনি তঞ্চঙ্গ্যা; (৫) উচিংমং মারমা, ৩৫ বছর, পিতা-অজ্ঞাত; (৬) সুইথোয়াইচিং মারমা, ৩৫ বছর, পিতা মৃত সুইহ্লাঅং মারমা। আটককৃত সকলেই তিনছড়ি জুমিয়া পুনর্বাসন পাড়ার অধিবাসী। সুইথোয়াইচিং মারমা তিনছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক বলে জানা গেছে।

উক্ত ঘটনার পর সেনা সদস্যরা আশেপাশের গ্রামে অভিযান শুরু করলে আটকের ভয়ে গ্রামের পুরুষ সদস্যরা গ্রাম ছেড়ে অন্যত্র পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় এলাকার জনমনে চরম আতঙ্ক ও নিরাপত্তাহীনতা দেখা দেয়।

সর্বশেষ প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী কাপ্তাই জোন কমাণ্ডার এসে আটককৃত সকল ব্যক্তিদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

তথ্যসূত্র: হিল ভয়েস

No comments: