Saturday, April 10, 2021

পানছড়িতে লোগাং গণহত্যা দিবস পালিত

পানছড়ি প্রতিনিধি, সিএইচটি নিউজ
শনিবার, ১০ এপ্রিল ২০২১


খাগড়াছড়ির পানছড়িতে লোগাং গণহত্যা দিবস পালন করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম।

লোগাং গণহত্যার ২৯ বছর উপলক্ষে আজ শনিবার (১০ এপ্রিল ২০২১) বেলা ২টায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে  লোগাং ইউনিয়নে উক্ত ঘটনার শিকার ব্যক্তি ও প্রত্যক্ষদর্শীদের নিয়ে স্মৃতিচারণমূলক স্মরণসভা ও প্রদীপ প্রজ্জ্বলন কর্মসূচি পালন করা হয়।

শুরুতে সকল শহীদদের প্রতি সম্মান জানিয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

এরপর অস্থায়ী স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন ইউপিডিএফ’র পক্ষ থেকে দারুন চাকমা ও পিংকু চাকমা; পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ, গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের পক্ষ থেকে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন সোহেল চাকমা, এন্টি চাকমা ও সুরমঙ্গল চাকমা এবং এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন শিশু কান্তি চাকমা ও বিশিষ্ট মনি চাকমা।


পরে অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম পানছড়ি উপজেলা সভাপতি কৃপায়ন চাকমার সভাপতিত্বে ও পিসিপির আহ্বায়ক সুনীল ময় চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, ইউপিডিএফ সদস্য দারুন চাকমা ও হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগড়াছড়ি জেলা আহ্বায়ক এন্টি চাকমা। এতে ঘটনার স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য দেন শিশু কান্তি ও বিশিষ্ট মনি চাকমা।

বক্তারা বলেন, আজ থেকে ২৯ বছর আগে ১৯৯২ সালের ১০ এপ্রিল সংঘটিত লোগাং গণহত্যা পার্বত্য চট্টগ্রামে একটি বর্বরতম ঘটনা। এই দিনটি পার্বত্য চট্টগ্রামের জন্য একটি কালো দিন। পাহাড়িদের প্রধান উসব বৈ-সা-বি’র দুদিন আগে সংঘটিত এ গণহত্যার ঘটনাটি আমাদের প্রজন্মের পর প্রজন্ম স্মরণ করতে হবে এবং বিচারের দাবি জানাতে হবে।  

তারা বলেন, সেদিন মিথ্যা গুজব ছড়িয়ে রাষ্ট্রীয় বাহিনীর প্রত্যক্ষ মদদে সেটলার বাঙালিরা লোগাঙে পাহাড়িদের গুচ্ছগ্রামে হামলা চালায়, ৭ শতাধিক ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগ, লুটপাট ও কয়েকশ’ পাহাড়িকে হত্যা করে। হত্যার পর লাশ গুম করে ফেলা হয়। এ ঘটনায় আরো বহু মানুষ নিখোঁজ হয়ে যায়।


বক্তারা দীর্ঘ ২৯ বছরেও লোগাং গণহত্যার বিচার না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এত বছরেও বিচার না হওয়ার মাধ্যমে এটাই প্রমাণ হয় যে, রাষ্ট্রের ইন্ধনেই এই ঘটনা সংঘটিত হয়েছে। যার কারণে রাষ্ট্র নিজেই ঘটনাটি ধামাচাপা দিয়ে বিচারহীন অবস্থায় রেখেছে।

বক্তারা বলেন, শুধু লোগাং গণহত্যা নয়, একই কায়দায় কাউখালি, লংগদু, নান্যাচরসহ পার্বত্য চট্টগ্রামে আরো ডজনের অধিক গণহত্যা সংঘটিত হয়েছে। কিন্তু রাষ্ট্র কোন কোন ঘটনারই বিচার করেনি।

তারা সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে লোগাং গণহত্যাসহ পার্বত্য চট্টগ্রামে সংঘটিত সকল গণহত্যার বিচার ও ঘটনায় জড়িতদের আইনের আ্ওতায় আনার দাবি জানান।

সভা শেষে গণহত্যায় নিহতদের স্মরণে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করা হয়।


No comments: