Saturday, September 25, 2021

রুমায় পাহাড়ি ছাত্রীকে ধর্ষণ ও ধর্ষণের ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার হুমকির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক গ্রেফতার, জেলে প্রেরণ

ছাত্রীকে ধর্ষণ ও ভিডিওচিত্র ধারণে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক সমর কান্তি দত্ত

বান্দরবান ।। বান্দরবানের রুমা উপজেলায় পাহাড়ি স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ ও ধর্ষণের ভিডিওচিত্র ধারণ করে তা ছড়িয়ে দেয়ার হুমকির অভিযোগে রুমা জুনিয়র হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক সমর কান্তি দত্ত (৫৬)-কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গতকাল শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১) রাতে রুমা বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

আজ শনিবার বান্দরবান জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে নেওয়া হলে আদালত অভিযুক্ত শিক্ষককে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

অভিযুক্ত শিক্ষকের বাড়ি বাড়ি চট্টগ্রাম জেলার লোহাগাড়া উপজেলায়। তার পিতার নাম সুনীল কান্তি দত্ত। ইতোপূর্বেও তার বিরুদ্ধে পরীক্ষায় পাস করে দেওয়াসহ বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে ছাত্রীদের সাথে অনৈতিক ও অশ্লীল আচরণের অভিযোগ রয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী ছাত্রী ২০১৯ সালে এসএসসি পরীক্ষায় অকৃতকার্য হয়। এরপর সে প্রধান শিক্ষক সমর কান্তি দত্তের রুমাস্থ বাড়িতে প্রাইভেট পড়তে শুরু করে। প্রাইভেট পড়ানোর সময় একদিন সুযোগ পেয়ে ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন ও ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ধারণ করে রাখেন। তবে ভয়ে ও লজ্জায় ভুক্তভোগী ছাত্রী ঘটনাটিকে কাউকে বলেনি।

কিন্তু শিক্ষক সমর কান্তি দত্ত ধারণকৃত ভিডিওচিত্রটি ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ছাত্রীকে তার কাছে যেতে বলতেন। কিন্তু ওই ছাত্রী আর তার কাছে যায়নি। এরপর গত ২২ সেপ্টেম্বর (বুধবার) অভিযুক্ত শিক্ষক ছাত্রীর ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে পূর্বে ধারণকৃত ধর্ষণের ভিডিওচিত্রটি পাঠিয়ে আবারো ব্ল্যাকমেইল করলে ছাত্রী ঘটনার বিস্তারিত তার বড় বোনকে জানায়।

ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর ভুক্তভোগী ছাত্রীর বড় বোন শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) রাতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ও পর্ণোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে রুমা থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক সমর কান্তি দত্তকে গ্রেফতার করে।

এ বিষয়ে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জিংএংময় বম বলেন, প্রধান শিক্ষক এর অনৈতিক আচরণের অভিযোগের বিষয়টি দীর্ঘদিন ধরে শুনে আসছি। তবে ভয়ে কোনো শিক্ষার্থী এ বিষয়ে কথা বলতে সাহস পায়নি।

রুমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আবুল কাশেম চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গত শুক্রবার রাতে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ও পর্ণোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার পর পরই অভিযুক্ত শিক্ষক সমর কান্তি দত্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শনিবার তাকে আদালতে নেওয়া হলে আদালত অভিযুক্তকে জেল হাজাতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

No comments: